ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪,
সরকার অনুমোদিত নিবন্ধন নম্বর ১৯১
Reg:C-125478/2015

ডিবি পিটিয়ে ছাত্রলীগ কর্মী গ্রেপ্তার

ডেস্ক রিপোর্ট


প্রকাশ: ১১ জুন, ২০২৪ ০৯:১৫ পূর্বাহ্ন | দেখা হয়েছে ৩১ বার


ডিবি পিটিয়ে ছাত্রলীগ কর্মী গ্রেপ্তার

ফরিদপুর: জেলার বোয়ালমারী উপজেলায় সরকারি কাজে বাধা এবং গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওপর হামলা, মারপিট ও আহত করার ঘটনায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এ মামলায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

সোমবার (১০ জুন) ওই দুই ছাত্রলীগ নেতার নামে বোয়ালমারী থানায় ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। রোববার বিকেলে বোয়ালমারী পৌর সদরের নাট মন্দির সংলগ্ন স্টেশন রোডে হামলার এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার দুজন হলেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ মুর্তজা তমাল (৩২) এবং সহ সভাপতি মো. আরিফুল ইসলাম রনি (২৮)। তারা বোয়ালমারী উপজেলা সদরের কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজ এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়, পুলিশ কর্মকর্তা ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতি রোববার বোয়ালমারীতে হাট বসে। ভাঙা-চোরা রাস্তা ও হাটের কারণে নাট মন্দির সংলগ্ন স্টেশন রোডে প্রচুর যানজট ছিল। ওই যানজটের মধ্যে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের একটি গাড়ি যাচ্ছিল। ওই গাড়ির পেছনে ছাত্রলীগের ওই দুই নেতা মোটরসাইকেল যাচ্ছিলেন।  

যানজটের কারণে ডিবির গাড়ি সামনের দিকে এগোতে পারছিল না। কিন্তু পেছন থেকে ছাত্রলীগ নেতাদের বহনকারী মোটর সাইকেল থেকে বার বার হর্ন বাজানো হচ্ছিল। এ অবস্থায় ডিবি পুলিশের গাড়ি থেকে এক কনস্টেবল নেমে বারবার হর্ন দেওয়ার কারণ জানতে চান। এতে দুই ছাত্রলীগ নেতা আজেবাজে মন্তব্য করে এবং ডিবির ওই কনস্টেবলকে গালাগালি এবং পরে মারপিট করে। এতে ওই কনস্টেবল আহত হন।  

ডিবি পুলিশের আহত ওই কনস্টেবলের নাম মির্জা গোলাম গাউস। তাকে আহত অবস্থায় ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ নিয়ে বোয়ালমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত সিদ্দিকী বলেন, আমাদের জেলার সভাপতি আসছিলেন। যানজটের কারণে একটু দুই পক্ষের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। সভাপতি ছাত্রলীগের যোগ্য অভিভাবক। আমরা প্রশাসনকে সহযোগিতা করি।  

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তামজিদুল রশিদ চৌধুরী রিয়ান বলেন, খবর পেয়ে আমি রাতে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। পুলিশের সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। একটি ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। আশা করছি দ্রুত বিষয়টি মিটে যাবে।

বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হান্নানের বাদী হয়ে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিন বলেন, সরকারি কাজে বাধা এবং গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওপর হামলা, মারপিট এবং আহত করার ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করে সোমবার (১০ জুন) দুপুরে ফরিদপুর আদালতে পাঠিয়েছে।


   আরও সংবাদ