ঢাকা, বুধবার, ২২ মে ২০২৪,
সরকার অনুমোদিত নিবন্ধন নম্বর ১৯১
Reg:C-125478/2015

মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির ৬ দাবি

ডেস্ক রিপোর্ট


প্রকাশ: ১৫ মে, ২০২৪ ১২:২৩ অপরাহ্ন | দেখা হয়েছে ৮২ বার


মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির ৬ দাবি

ঢাকা: সরকারি নিয়মে বাড়িভাড়া, পূর্ণাঙ্গ উৎসব বোনাস, চিকিৎসা ভাতা, সরকারি শিক্ষকদের অনুরূপ এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের পেনশনে অন্তর্ভুক্তকরণ, ইনডেক্সধারীদের বদলি ও প্রধানশিক্ষক এবং সহ-প্রধান শিক্ষকদের পদোন্নতি নিয়োগ কমিশন গঠনপূর্বক নিয়োগ দেওয়ার দাবি করেছেন বাংলাদেশ মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক সমিতি।

আগামী ২৩ মে এ ৬ দাবি সম্বলিত একটি স্মারকলিপি শিক্ষামন্ত্রীকে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. নূরে আলম বিপ্লব।

 

 

এক ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত হয় বলে আজ বুধবার (১৫ মে) জানিয়েছেন তারা।  

সভায় নেতারা বলেন, সরকারি নিয়মে বাড়িভাড়া, পূর্ণাঙ্গ উৎসব বোনাস, চিকিৎসাভাতা প্রদান করলে বেতন-বৈষম্য অনেকটা কমে আসবে এবং শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের কাজ আরও সহজ হবে। ইনডেক্সধারীদের বদলি হলে তারা তাদের নিজ নিজ জেলায় গিয়ে পাঠদান করাবেন। পরিবার-পরিজন নিয়ে থাকতে পারবে। বেতন-ভাতা কম বলে নিজ এলাকায় শিক্ষকদের কার্যক্রম পরিচালনা করলেই ভালো হয়। তাছাড়া এক জায়গায় দীর্ঘদিন চাকরি করাও সমীচীন নয়।  

নেতারা প্রধান শিক্ষক ও সহ-প্রধান শিক্ষকদের নিয়োগের বিষয়ে বলেন, এ দুই পদের নিয়োগে উপঢৌকন তথা ঘুষ বাণিজ্য হয়। ফলে যোগ্যতর ব্যক্তিরা কমই আসেন এ জায়গায়।  

তাই দুটো নিয়োগের বেলায় কমিশন গঠন করে সমস্যার সমাধান করার জোর দাবি জানান তারা।

সভা থেকে ‘সাপ্তাহিক ছুটি’ শনিবার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পুনরায় ছুটি বহাল রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করায় শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণাকে স্বাগত জানানো হয়।

সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও ঢাকা মহানগরের আহ্বায়ক মোহাম্মদ ইয়াছিন, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি অমৃত কারণ, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও বগুড়ার শেরপুর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুস সোবহান, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি শরিয়তপুর জেলার আহ্বায়ক সুশান্ত ভাওয়াল, কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও খাগড়াছড়ি জেলার সাধারণ সম্পাদক তমাল দাস লিটন, কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব কুমার দত্ত প্রমুখ।


   আরও সংবাদ